কানাডা - যুক্তরাষ্ট্রের বাংলাদেশীদের ব্যতিক্রমী ক্রিকেট ম্যাচ

Mon, Sep 18, 2017 9:19 AM

কানাডা - যুক্তরাষ্ট্রের বাংলাদেশীদের ব্যতিক্রমী ক্রিকেট ম্যাচ

সাইফুল আজম সিদ্দিকী মিশিগান, (যুক্তরাষ্ট্র) থেকে : বাংলাদেশী আমেরিকানদের ক্রিকেট দল ‘মিশিগান বেঙ্গল’স’ আর বাংলাদেশী কানাডিয়ানদের ক্রিকেট দল ‘উইন্ডসর ওরিয়র’ প্রীতি টি২০ ক্রিকেট ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয় সেপ্টেম্বর ১৬ শনিবারকানাডার ওন্টারিও প্রদেশের উইন্ডসর শহরের ক্রিকেট মাঠে অনুষ্ঠিতহয় এ গৌরবময় ম্যাচ।

গাঢ় সবুজ মাঠ, মধ্যখানে সবুজ টার্ফের পিচ। কানাডার ওন্টারিও প্রদেশের উইন্ডসর শহরে এতো সুন্দর ক্রিকেট মাঠ দেখলেই বোঝা যাবে উত্তর আমেরিকায় ক্রিকেটের জনপ্রিয়তা অগ্রাহ্য করতে পারেনি শহর কর্তৃপক্ষ 

উত্তর আমেরিকার দুই দেশের বাংলাদেশীদের এ প্রীতি ম্যাচ নিয়ে প্রায় মাসব্যাপী প্রস্তুতি। শনিবারের প্রচন্ড কুয়াশা ঠেলে মিশিগান অঙ্গরাজ্যের ‘মিশিগান বেঙ্গল’স’ দলের খেলোয়ারদের গাড়িতে যাত্রা শুরু। উদ্দেশ্য বেলা ফুটতেই যেন কানাডার বর্ডার পেড়িয়ে উইন্ডসর শহরে পৌঁছান যায়

জমজমাট আর হৈ-হুল্লোড়ে ভরা পুরো মাঠ, চাপ-চাপ উত্তেজনা, অনন্য ভাল লাগা। এ যেন উত্তর আমেরিকায় একটুকরো বাংলাদেশ। অসাধারন কিছু মুহূর্ত, সাত সমুদ্র দূরে দুই দেশের বাংলাদেশীদের এক মিলন মেলা।

কানাডাতে যেহেতু খেলা, তাই সেখানে অবস্থানরত বাংলাদেশী ও বাংলাদেশী কানাডিয়ানদের নেই ভিসা ও পাসপোর্টের ঝক্কি ঝামেলা। পরিবার পরিজন নিয়ে সকলে তাই মাঠে হাজির। উদ্দেশ্য তাদের প্রিয় দলকে উৎসাহ জোগানো। জয় নিয়ে বাসায় ফেরা। খেলা নিয়ে স্বাগতিকদের মাঝে ছিল ব্যাপক প্রস্তুতি।

কুয়াশা ঢাকা ভোরে সাতটায় সাদা পোশাক পড়া ‘উইন্ডসর ওরিয়র’ এর খেলোয়াড়দের আগমন। সকালের মিষ্টি রোদ ফুটতেই দর্শক সংখ্যাও বাড়তে থাকে।  দর্শকদের মাঝে প্রচুর ভারতীয় ও শ্বেতাঙ্গ দর্শকদের সংখ্যাও চোখে পড়ার মত।

খেলা শেষে পেটপুরে বিরিয়ানি, দুই দলের খেলোয়াড় আর বাংলাদেশি দর্শক সবার জন্য এ আয়োজন করেছিলেন উইন্ডসর বাংলাদেশি কমিউনিটি। এটাও খেলার একটা ঐতিহ্য হয়ে দাঁড়িয়েছে। খেলা এবং তার এই পরিবেশন নস্টালজিক করে তোলে সকলকে। এ যেন চিরপরিচিত বাংলার এক খেলার মাঠ

মাঠে প্রচুর কুয়াশা থাকায় টসে জিতে প্রথমে ফিল্ডিং নেন ‘উইন্ডসর ওরিয়র’ এর অধিনায়ক রোকন রুমি। সফলতাও পান তার এ সিদ্ধান্তে। ওপেনিং ও দ্বিতীয় উইকেটে ১৮ ও ৩৯ রানের জুটি হলেও মিডিল অর্ডারের ধসে ৭ ওভারে ৬৫ রান দাড়ায়। শেষ দুই উইকেট জুটিতে ২০ ওভার শেষে ৯ উইকেট হারিয়ে ১২৭ রান করে মিশিগান বেঙ্গল’স। সালাহউদ্দিন আজিজ করেন সবোচ্চ ২৭ রান।

‘উইন্ডসর ওরিয়র’ ওপেনিং জুটিতে ভালো ভাবেই সামাল দিচ্ছিলেন। রানের গতি বাড়াতে গিয়ে রান আউটে ভাঙ্গে ওপেনিং জুটি। মিশিগান বেঙ্গলসের নিয়ত্রিত বোলিং এ উইন্ডসর ওরিয়র’ ১০৬ রানে থেমে যায়রাজু করেন সবোচ্চ ৩৩ রান। মিশিগান বেঙ্গল’স ২১ রানে জয় লাভ করেন।

সফরকারী মিশিগান বেঙ্গলস দলের সকল খেলোয়াড় মিশিগান অঙ্গরাজ্যের, সাইফুল আজম সিদ্দিকী (অধিনায়ক), মীর রসি, ইয়াসির সাত্তার, নাফিস কোরাইশি, আসিফ ইকবাল, হোবায়েব ইবনে ইউনুস, হাসান খান, আমিন শরফুজ্জামান পুলক, মোহাম্মাদ সালাউদ্দিন আজিজ, সৈয়দ আশরাফ এবং কৌশিক আহমেদ

 স্বাগতিক বাংলাদেশি কানাডিয়ানদের দলে ছিলেন, রোকন রুমি (অধিনায়ক), জালাল, মুন্না, জাকি, হিমেল দেওয়ান, মারুফ (জয়), সৈকত, মুন্তাসির, মোহাম্মেদ হাবিব রাজু, তৌহিদ, অতনু এবং ইমতিয়াজঅ্যাাম্পায়ারে ছিলেন রবিউল বিপ্লব


সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে
Designed & Developed by Tiger Cage Technology
উপরে যান