৮ময় বর্ষ সংখ্যা ৪৯ | সাপ্তাহিক  | ১৬ আগস্ট ২০১৭ | বুধবার
কী ঘটছে জানুন, আপনার কথা জানান

টরন্টোয় বৃহত্তর রংপুরবাসীদের আনন্দময় বনভোজন

নতুনদেশ ডটকম

আনন্দ আর উল্লাসের মধ্য দিয়ে গত ৬ আগস্ট টরন্টোর মিলিকেন ডিস্ট্রিক্ট পার্কে অনুষ্ঠিত হয়েছে  কানাডায় বসবাসরত বৃহত্তর রংপুরবাসীর বার্ষিক  বনভোজন।

 টরন্টো এবং পার্শ্ববর্তী এলাকায় বসবাসরত  বৃহত্তর রংপুর এলাকার প্রবাসী বাংলাদেশিরা পরিবার পরিজন এবং বন্ধুদের নিয়ে এই বনভোজনে অংশ নেয়। এই সময় মনোরম প্রাকৃতিক সৌন্দর্যমন্ডিত পার্কে  ফেলে আসা দিনের স্মৃতিতে মগ্ন হয়ে পড়েন তারা।

ছোটো বড় সব বয়সীদের আনন্দময় সময় নিশ্চিত করতে  আয়োজন করা হয় নানা ধরনের প্রতিযোগিতার।ছোটো ছবি আঁকা, দৌড় প্রতিযোগিতা, নারী ও পুরুষদের প্রতিযোগিতাগুলো সবাইকে নির্মল আনন্দ দেয়। বিশেষ  ভাবে ` বেলুন বাঁচাও’ প্রতিযোগিতা এবং `  " ধাঙ্গীর মাও আন্চলিক নাটক "টি সবার বিশেষ মনোযোগ কাড়ে।  মোরশেদা বেগম এবং বাদশা আলম "ধাঙ্গির মাও" নাটিকাটিকে রংপুরের মানুষের সহজ সরল যাপিত জীবনের নানা কথা হাস্য রসের মধ্যে দিয়ে দর্শকদের বিমল আনন্দ দিতে সফল হয়েছেন। এছাড়াও র‍্যাফেল ড্র’সহ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান বনভোজনে অংশগ্রহনকারীদের বিমল আনন্দ দেয়।

প্রবাসে সাধারনত সংগঠনের ব্যানারে বনভোজন হলেও রংপুর এই ক্ষেত্রে ছিলো ব্যতিক্রম। এই প্রসঙ্গে বনভোজনের উদ্যোক্তাদের একজন চলচ্চিত্র নির্মাতা আনোয়ার আজাদ বলেন, আমরা রংপুরবাসী- এই স্পিরিটটাই আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ, সংগঠন নয়। তিনি বলেন, দীর্ঘদিন ধরে এইভাবেই রংপুরের পিকনিক হচ্ছে, তারা সংগঠন করার কোনো প্রয়োজনীয়তাই অনুভব করেননি।

ছেলে এবং মেয়েদের চকলেট দৌড়,মহিলাদের  ‘বেলুন বাঁচাও’ প্রতিযোগিতার স্পন্সর করেছে এ, আর লিংকস একাউন্টিং এন্ড ট্যাক্স সার্ভিসেস। সংস্থাটির প্রধান আতিকুর রহমান বলেন, প্রবাসে স্বদেশের আত্মীয়তার ছোঁয়া দেয় এই ধরনের বনভোজন। সেই কারনে তারা সারা বছর ধরেই অপেক্ষায় থাকেন এই সময়ের। 

 

পাঠকের মন্তব্য

শ্রেণীভুক্ত বিজ্ঞাপন

জন্মদিন/শুভেচ্ছা/অভিনন্দন


শ্রেণীভুক্ত বিজ্ঞাপন

কাজ চাই/বাড়ি ভাড়া


শ্রেণীভুক্ত বিজ্ঞাপন

ব্যক্তিগত বিজ্ঞাপন/অনুভূতি


 
 
নিবন্ধন করুন/ Registration