৮ময় বর্ষ সংখ্যা ৩৭ | সাপ্তাহিক  | ১৭ মে ২০১৭ | বুধবার
কী ঘটছে জানুন, আপনার কথা জানান

বীথির কাছে চিঠি-১৮

লুনা শিরীন

সদানন্দের মেলা—নামে একটা বাংলা ছবি, উত্তম /সুচিত্রা /ছবি বিশ্বাস/ পাহাড়ি স্যানাল – ১৯৫৪ সালের  তৈরী । কত যুগ আগে হবে বীথি ? কি অসাধারন  ছবির  কাহিনী আর মুল বক্তব্য , আমি ভেবে  ভেবে কুল কিনারা পাই না,এই যে বহমান জীবন আসলেই এর অর্থ কি?

কি ভীষন নীরব ছুটির দিন, গতরাতে ছেলেকে দিয়ে এসেছি ওর বন্ধুর বাসায়,আমার শুন্য  ঘরে নিজের মতো সময় কাটাবো, উত্তম /সুচিত্রার একটা  সিনেমা দেখবো,নিজের মনের সাথে কথা বলে দেখবো –জীবনের এই চলার  ঠিক আছে কিনা,ভেবে দেখবো  প্রতিদিন যা করছি জীবনের  প্রয়োজনে আসলেই সেগুলো দরকার, নাকি শুধু করতে হয় বলেই করছি ? এমন সব ভাবনা নিয়েই সকাল থেকে নিজের নিরিবিলি পড়ার টেবিলে বসেছি । এখনকার দুনিয়া সবার কাছে ওপেন, কোথাও লুকোছাপার দরকার নেই, চাইলেই সব পাওয়া যায়, এমন দুনিয়ায় নাকি আমরা বাস করছি, মানুষের অসাধ্য নাকি কিছুই নেই । কিন্তু জানিস তো, এই যে  দার্শনিক ছবিটা দেখলাম, প্রতিটা লাইনে লাইনে জীবনের দর্শন, জীবনকে চালিয়ে নিতে গিয়ে,আয় রোজগার করতে গিয়ে, নিজের সুখ খুজতে গিয়ে আমরা আসল সত্য থেকে দূরে চলে যাই বীথি, আমরা মনে করি টাকা / ধন / ভোগ আমাকে অনেক সুখী করবে, আর তার পিছনে ছুটতে গিয়ে দেখি ,জীবনে মৌলিক আনন্দ থেকে লক্ষ লক্ষ মাইল পিছনে পরে আছি । স্বামী/  বঊ / বাচ্চা /বাবা /মা  কেউ আমার আপন হয়নি,আমি শুধুই দায়িত্ব পালন করেছি, টাকা বানিয়েছি, কিন্তু  সত্যিকার   অর্থে কারো মনে সুখ দিতে পারিনি, এমনকি নিজেকেও সুখী করতে পারিনি। হয়তো ভেবেছি যে—এই তো টাকা হলেই সুখ হবে, ভেবেছি চাকরি হলেই সমস্যা মিটবে, ভেবেছি নিজের  প্রিয়জনকে দিলেই বুঝি সে আমাকে ভালোবাসবে , কিন্তু কোথায় বীথি ? কাঊকে জিনিস দিয়ে কি কেঊ কোনদিন কাঊকে সুখী করতে পেরেছে ? যদি সেখানে ভালোবাসা না  থাকে বা শুধুই  নীরবে দেবার আনন্দ না থাকে ? সেই দেয়ার ভিতরে যদি  মহত্ত্ব না থাকে? কাঊকে দেবার পরে যদি সেই মানুষ শুধুই ভাবতে থাকে আমার কাছে থেকে নিয়ে সে অপরাধী হয়ে রইল  তাহলে একজন মানুষকে ভালোবাসতে গিয়ে তো আমি চীরজীবনের জন্য তাকে শুধ অসুখী করলাম , তাই না ?

 জানিস বীথি,কোলকাতার এই সিনেমা গুলো বিশেষ করে উত্তম / সুচিত্রার সিনেমাগুলো যে কতবেশী জীবননির্ভর সেটা আজকের যুগের অনেকেই জানে না, আবার অনেকে জানেনও  সেটা , সদানন্দের মেলা  ছবিটা বাংলাদেশের সব সব সব  মানুষের দেখা উচিত, এমন অসম্ভব একটা ভালো সিনেমা কি করে বানানো হোলো তাই ভাবছি আর লিখছি তোকে,ছবি বিশ্বাস এর মতো তুখোড় অভিনেতা কি জন্মেছে আর  বাংলা ভাষায় ? তিনি বলছিলেন বড়লোক পাহাড়ি স্যান্যাল কে – দুনিয়ায় যাদের আর কিছুতেই বড় হবার নেই  তারাই শুধুই টাকায় বড় হতে  চায় । অবাক কান্ড কি জানিস  বীথি, আমি এই বয়স পর্যন্ত  কোন ধনী সুখী লোক দেখেনি, বোধহয় কেউই দ্যাখেনি ।  তবুও আমরা জীবনকে  সেই দিকেই চালনা করি প্রতিমুহুরত। 

তোকে বলি  বীথি , তুই তো চিনিস আমাকে সেই ছোটবেলা থেকে,  ক্লাস সিক্স থেকে, কবে কোথায় কি কি দেখে  এতটা পথ আসলাম সেই আলোচনায় না যাই , কিন্তু এই বিদেশের একাকী জীবনে বেশ কিছু রুল সেট করেছি নিজের জীবনের জন্য ,এবং সেটা নিজের স্বার্থেই, আমরা প্রতিটা মানুষ-ই নিজের সুবিধা অনুযায়ী কথা বলি কাজ করি, কিন্তু সেটা স্বীকার করার মতো সাহস নেই বলে, স্বামী/ সন্তান এর অজুহাত দেই । আমার নিজের সেই চিন্তাগুলো শেয়ার করেছি একমাত্র ছেলের সাথে , দিনের পর দিন,আজকে এই সুন্য ঘরে তোকে লিখতে গিয়ে দেখি ১৪ বছর  ধরে নিজের ছেলেকে যা বলেছি আজ আমার ছেলে আমাকেই তা ফেরত দিচ্ছে, আর আমার বুকের ভিতরটা কেপে উঠেছে। ভাবছি , তাই তো ? নিজেই তো বলেছি ছেলেকে, বাবাসোনা আমার , জীবনে ভালো মানুষ হওয়াটাই জরুরী , প্রতিনিয়ত ন্যায় / অন্যায়কে  বুঝে  চলতে হবে এইজন্যই আমরা  মানুষ , বাবু, ডলার তোমাকে হ্যাপী করবে না, তুমি নিজে ভালো মানুষ হলে তুমি হ্যাপি হবে,  তুমি পড়াশোনা করবে হাইগ্রেড পাবার জন্য না , বরং আনন্দ পাবার জন্য – এইসব কথা বলেছি নাইয়াকে গত ১৪ বছর, সেদিন নাইয়া আমার গরম লেপের ভিতরে শুয়ে বলছে , মা আমি যদি অড জব করি আর হ্যাপি মানুষ থাকি  তাহলে তুমি হ্যাপি হবা ? আমি চুপ করে ছিলাম, নাইয়া আবার বলে, মা, তুমি তো আমাকে অনেক ট্রাস্ট  করো , কোনো চিন্তা কোর না , আমি তোমার  ট্রাস্ট নস্ট করবো না ।  আমি ভয় পাই বীথি, ভাবি , আমি কি নিজের কবর নিজেই রচনা করে  চলছি,আসলে তো আমরা সব মানুষই  তাই –ই করি শেষ বেলায় , ভাবি যা যা করছি সেটাই আমাকে সুখী করবে , একদিন দেখতে পাই –ওই সুখটাই আমাকে ছেড়ে চলে  গ্যাছে , কিন্তু আর সবকিছু পরে আছে  আমার মুখপানে চেয়ে ,  রবীন্রনাথের গানের মতো –এরা সুখের লাগি চাহি প্রেম , প্রেম চলে যায়,সুখ মেলে না, ---।

 অনেক বাজে বকলাম বীথি , আদর তোকে । 

২৯ মার্চ , ২০১৪

পাঠকের মন্তব্য

শ্রেণীভুক্ত বিজ্ঞাপন

জন্মদিন/শুভেচ্ছা/অভিনন্দন


শ্রেণীভুক্ত বিজ্ঞাপন

কাজ চাই/বাড়ি ভাড়া


শ্রেণীভুক্ত বিজ্ঞাপন

ব্যক্তিগত বিজ্ঞাপন/অনুভূতি


 
 
নিবন্ধন করুন/ Registration